বুধবার, ২১ এপ্রিল, 2০২1
বনানীর সেই শিশুকে হত্যা করেছে সৎ বাবা, অভিযোগ মায়ের
Published : Saturday, 27 February, 2021 at 9:23 PM

স্টাফ রিপোর্টার:
বনানীর কড়াইল বস্তি এলাকায় শিশু তানজিলা (৩) মৃত্যুর ঘটনায় তার মা জরিনা বেগম অভিযোগ করেছেন, ‘তার সৎ বাবা (জরিনার স্বামী) মহিউদ্দিন তাকে হত্যা করেছে। আমার প্রথম স্বামীর সঙ্গে সাত মাস আগে আমার ডিভোর্স হয়ে যায়। সে মাদকাসক্ত ছিল। এরপর ছয় মাস আগে মহিউদ্দিনের সঙ্গে আমার বিয়ে হয়।’
তিনি আরও বলেন, ‘তিন দিন ধরে আমার সঙ্গে তার কথা কাটাকাটি হচ্ছিল। এ কারণে আমি রাগ করে সকালে আমার বোনের বাসায় চলে যাই। আমি বাসা-বাড়িতে কাজ করি। আমি ফোনে খবর পেয়ে দ্রুত ছুটে আসি। এসে শুনি মহিউদ্দিন আমার মেয়েকে হত্যা করেছে।’ তানজিলা (৩) নামের ওই শিশুর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে শনিবার। সকালে গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
নিহত শিশুর বাবা মহিউদ্দিন তখন বলেন, ‘সকাল সাড়ে ৮টার দিকে বাসার দ্বিতীয় তলার সিঁড়ি পাশে তানজিলাকে অচেতন অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখি। তাকে দ্রুত ঢাকা মেডিকেলে নিয়ে গেলে ১০টার দিকে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।’
ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ (পরিদর্শক) মো. বাচ্চু মিয়া মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ‘মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ঢামেক মর্গে রাখা হয়েছে। বিষয়টি সংশ্লিষ্ট থানাকে অবগত করা হয়েছে।’
কর্তব্যরত চিকিৎসকের বরাত দিয়ে তিনি বলেন, ‘নিহত শিশুর গালে কামড়ের দাগ রয়েছে এবং যৌনাঙ্গ খোলা রয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে কারো পাশবিক নির্যাতনে তার মৃত্যু হয়েছে। ঘটনাযর বিস্তারিত জানার জন্য শিশুটির বাবাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশ হেফাজতে নেয়া হয়েছে। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদনের রিপোর্ট পেলে বিস্তারিত জানা যাবে।’







সম্পাদক : জয়নাল হাজারী।  ফোন : ০২-৯১২২৬৪৯
মোঃ ইব্রাহিম পাটোয়ারী কর্তৃক ফ্যাট নং- এস-১, জেএমসি টাওয়ার, বাড়ি নং-১৮, রোড নং-১৩ (নতুন), সোবহানবাগ, ধানমন্ডি, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
এবং সিটি প্রেস, ইত্তেফাক ভবন, ১/আর কে মিশন রোড, ঢাকা-১২০৩ থেকে মুদ্রিত।
আবু রায়হান (বার্তা সম্পাদক) মোবাইল : ০১৯৬০৪৯৫৯৭০ মোবাইল : ০১৯২৮-১৯১২৯১। মো: জসিম উদ্দিন (চীফ রিপোর্টার) মোবাইল : ০১৭২৪১২৭৫১৬।
বার্তা বিভাগ: ৯১২২৪৬৯, বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন: ০১৯৭৬৭০৯৯৭০ ই-মেইল : [email protected], Web : www.hazarikapratidin.com
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি