বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর, ২০২০
খেপেছেন আনুশকা, জবাবে যা বললেন গাভাস্কার
Published : Saturday, 26 September, 2020 at 7:21 PM

ক্রীড়া ডেস্ক ॥
বিরাট কোহলির পারফরম্যান্স নিয়ে সাবেক ক্রিকেটার ও ধারাভাষ্যকার সুনিল গাভাস্কারের মন্তব্যে নিজের নাম আসায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন কোহলির স্ত্রী এবং বলিউড অভিনেত্রী আনুশকা শর্মা। ভারতীয় বিভিন্ন গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়, গাভাস্কারের বিতর্কিত ওই মন্তব্যকে বিরক্তিকর অভিহিত করে এর? তীব্র সমালোচনা করেছেন আনুশকা।
পরে বিষয়টি নিয়ে নিজের অবস্থান স্পষ্ট করেছেন গাভাস্কার। তিনি জানান, তার মন্তব্য অন্যভাবে নেওয়া হয়েছে। কোনোভাবেই বিরাটের ব্যর্থতার জন্য তিনি আনুশকাকে দায়ী করেননি বলে জানান গাভাস্কার।  বৃহস্পতিবার দুবাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে আইপিএলের কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব ও রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরের মধ্যকার ম্যাচে ধারাভাষ্যের সময় কোহলির অনুশীলনের ঘাটতি নিয়ে কথা বলেন গাভাস্কার। তিনি বলেন, ‘কোহলি জানে, সে যত বেশি অনুশীলন করবে তত ভালো করতে পারবে। এত দিন লকডাউন ছিল, এই সময়ে সে কেবল আনুশকার বোলিংয়ে অনুশীলন করেছে, যা তার খুব বেশি কাজে আসবে না।’ লকডাউন চলাকালীন বাড়ির ছাদে আনুশকার থ্রোডাউনের বিপক্ষে কোহলির ব্যাটিং অনুশীলনের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়। গাভাস্কার সেই ভিডিও ক্লিপের দিকে ইঙ্গিত করে এমন মন্তব্য করে থাকতে পারেন বলে মনে করছেন অনেকে।  গাভাস্কারের ওই মন্তব্যের পরই ক্ষোভ প্রকাশ করে নিজের ইনস্টাগ্রাম পোস্টে আনুশকা লেখেন, ‘মিস্টার গাভাস্কার, আপনার মন্তব্যটি বিরক্তিকর। একজন স্বামীর পারফরম্যান্সের পেছনে তার স্ত্রীর দায় আছে, কি ভেবে আপনি এমন মন্তব্য করলেন, এর কারণ ব্যাখ্যা করলে খুশি হবো। আমি নিশ্চিত, ক্রিকেটে ধারাভাষ্য দেয়ার সময় এত বছর আপনি সব ক্রিকেটারের ব্যক্তিগত জীবনকে সম্মান করেছেন। আপনার কি মনে হয় না যে একই রকম সম্মান আমার ও আমাদের প্রতি আপনার থাকা উচিত?’ “আমি এটাও নিশ্চিত, আমার স্বামীর গত ম্যাচের পারফরম্যান্স নিয়ে বলতে গিয়ে আপনি অন্য শব্দও ব্যবহার করতে পারতেন, অন্যভাবেও বলতে পারতেন। নাকি এখানে কেবল আমার নাম ব্যবহার করলেই আপনার কথাগুলো প্রাসঙ্গিক হতো?” ‘২০২০ সালে এসেও আমাকে ঘিরে এই বিষয়গুলোর পরিবর্তন হয়নি। আর কবে ক্রিকেটের সাথে আমাকে জড়ানো বন্ধ হবে, এমন মন্তব্য বন্ধ হবে। মিস্টার গাভাস্কার, আপনি একজন কিংবদন্তি যার নাম ভদ্রলোকের এই খেলায় সবসময় ওপরের সারিতে থাকবে। আমি কেবল বোঝাতে চেয়েছি, আপনার কথাগুলো শুনে আমার কেমন লেগেছে,’ লেখেন আনুশকা।
আনুশকার প্রতিক্রিয়ার পর ইন্ডিয়া টুডের কাছে নিজের অবস্থান স্পষ্ট করলেন গাভাস্কার। তিনি বলেন, ‘আকাশ ও আমি হিন্দি চ্যানেলে ধারাভাষ্য করছিলাম। তখন আকাশ বলছিল যে, এত দিন যথাযথ অনুশীলনের জন্য সবার কাছে খুবই কম সুযোগ ছিল। কিছু ক্রিকেটারের পারফরম্যান্সে মরচে পড়ার বিষয়টি প্রথম ম্যাচে মূলত ফুটে উঠেছিল। প্রথম ম্যাচে রোহিত ভালোভাবে বল মারতে পারছিল না, ধোনিও পারছিল না, কোহলিও না।
 বেশির ভাগ ব্যাটসম্যানের এটা হয়েছে অনুশীলনের ঘাটতির কারণে। এটাই ছিল মূল পয়েন্ট। বিরাটও কোনো অনুশীলন করতে পারেনি, কেবল আনুশকার বোলিংয়ের বিপক্ষে বাসার ছাদের ওইটুকুই। আমি এটাই বলেছি। শুধু বোলিং, আমি অন্য কোনো শব্দ ব্যবহার করিনি। সে তাকে বল করেছিল, এটাই। কোথায় আমি তাকে দোষারোপ করলাম? এখানে যৌনবিদ্বেষমূলক কোন কথাটা বললাম আমি?’
গাভাস্কার আরো বলেন, ‘আমি বোঝাতে চেয়েছি, লকডাউনে বিরাটসহ কেউই অনুশীলন করতে পারেনি। আমি সেক্সিস্ট (যৌনবিদ্বেষমূলক) কোনো কথা বলিনি। যদি কেউ এটাকে এভাবে ব্যাখ্যা করে, আমি কী করতে পারি? আমি কেবল বলেছি, ভিডিওতে দেখাচ্ছে সে বিরাটকে বল করছে। লকডাউনে ওই বোলিংটাই কেবল খেলেছে বিরাট। এটা ছিল মজার ছলে খেলা, যেটা এই লকডাউনে লোকে সময় কাটাতে করেছে। এটাই। বিরাটের ব্যর্থতার জন্য তাকে (আনুশকা) আমি দায় দিলাম কোথায়?’



সম্পাদক : জয়নাল হাজারী।  ফোন : ০২-৯১২২৬৪৯
মোঃ ইব্রাহিম পাটোয়ারী কর্তৃক ফ্যাট নং- এস-১, জেএমসি টাওয়ার, বাড়ি নং-১৮, রোড নং-১৩ (নতুন), সোবহানবাগ, ধানমন্ডি, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
এবং সিটি প্রেস, ইত্তেফাক ভবন, ১/আর কে মিশন রোড, ঢাকা-১২০৩ থেকে মুদ্রিত।
আবু রায়হান (বার্তা সম্পাদক) মোবাইল : ০১৯৬০৪৯৫৯৭০ মোবাইল : ০১৯২৮-১৯১২৯১। মো: জসিম উদ্দিন (চীফ রিপোর্টার) মোবাইল : ০১৭২৪১২৭৫১৬।
বার্তা বিভাগ: ৯১২২৪৬৯, বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন: ০১৯৭৬৭০৯৯৭০ ই-মেইল : [email protected], Web : www.hazarikapratidin.com
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি