বুধবার, ১৫ জুলাই, ২০২০
সোলেইমানির ঘনিষ্ঠ আরেক কমান্ডারকে গুলি করে হত্যা
Published : Thursday, 23 January, 2020 at 6:59 PM

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ॥
মার্কিন ড্রোন হামলায় কুদ্স ফোর্সের কমান্ডার কাসেম সোলেইমানি হত্যার ধাক্কা এখনো কাটিয়ে উঠতে পারেনি ইরান। আর এরমধ্যেই সোলেইমানির ঘনিষ্ঠ হিসেবে পরিচিত দেশটির অভিজাত ইসলামী বিপ্লবী গার্ড বাহিনীর (আইআরজিসি) আরেক শীর্ষ কমান্ডার আবদুল হোসেইন মোজাদ্দামিকে হত্যা করা হয়েছে।
বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, গতকাল বুধবার ইরানের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় প্রদেশ খুজেস্তানের দারখোভিন নামক শহরে নিজ বাড়ির সামনে মাথায় গুলি করে মোজাদ্দামিকে হত্যা করে অজ্ঞাত দুই বন্দুকধারী। মোজাদ্দামি ছিলেন আইআরজিসির বাসিজ ফোর্সের প্রভাবশালী কমান্ডার এবং সোলাইমানির ঘনিষ্ঠ সহযোগী।
ইরানের রাষ্ট্রায়ত্ত বার্তা সংস্থা আইআরএনএ’র (ইরনা) বরাতে প্রতিবেদনে বলা হচ্ছে, দারখোভিন শহরে দুই মোটরসাইকেল আরোহী বাসিজ কমান্ডার আবদুল হোসেইন মোজাদ্দামিকে তার বাড়ির সামনে গুলি করে পালিয়ে যান। মাথায় গুলি লাগার কারণে ঘটনাস্থলেই মৃত্যুবরণ করেন তিনি।
মোজাদ্দামি আইআরজিসির বাসিজ ফোর্সের প্রভাবশালী কমান্ডার ছিলেন। আইআরজিসির মোট পাঁচটি ফোর্সের মধ্যে বাসিজ ফোর্স একটি। ইরানের অভ্যন্তরীণ যেকোনো আন্দোলন দমাতে এই ফোর্স ব্যবহার করা হয়। মূলত স্বেচ্ছাসেবী তরুণদের নিয়ে এই বাহিনীটি গঠন করা হয়েছে।
এর আগে গত ৩ জানুয়ারি ইরাকের রাজধানী বাগদাদের বিমানবন্দরে যুক্তরাষ্ট্র ড্রোন থেকে ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়ে ইরানের কুদ্স ফোর্সের কমান্ডার ও দেশটির দ্বিতীয় ক্ষমতাধর ব্যক্তি হিসেবে পরিচিত কাসেম সোলেইমানিকে হত্যা করে। তারপর থেকে দেশ দুটির মধ্যে উত্তেজনা বাড়ে, যা মধ্যপ্রাচ্যে ব্যাপক অস্থিতিশীলতা তৈরি করেছে।


সম্পাদক : জয়নাল হাজারী।  ফোন : ০২-৯১২২৬৪৯
মোঃ ইব্রাহিম পাটোয়ারী কর্তৃক ফ্যাট নং- এস-১, জেএমসি টাওয়ার, বাড়ি নং-১৮, রোড নং-১৩ (নতুন), সোবহানবাগ, ধানমন্ডি, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
এবং সিটি প্রেস, ইত্তেফাক ভবন, ১/আর কে মিশন রোড, ঢাকা-১২০৩ থেকে মুদ্রিত।
আবু রায়হান (বার্তা সম্পাদক) মোবাইল : ০১৯৬০৪৯৫৯৭০ মোবাইল : ০১৯২৮-১৯১২৯১। মো: জসিম উদ্দিন (চীফ রিপোর্টার) মোবাইল : ০১৭২৪১২৭৫১৬।
বার্তা বিভাগ: ৯১২২৪৬৯, বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন: ০১৯৭৬৭০৯৯৭০ ই-মেইল : [email protected], Web : www.hazarikapratidin.com
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি