বুধবার, ১৩ নভেম্বর, ২০১৯
ইলিশ ধরে কারাগারে ৫ গ্রাম পুলিশসহ নয়জন
হাজারিকা অনলাইন ডেস্ক
Published : Tuesday, 22 October, 2019 at 4:14 PM


ইলিশ ধরে কারাগারে ৫ গ্রাম পুলিশসহ নয়জনভোলায় দফাদারের নেতৃত্বে মা ইলিশ শিকারের দায়ে পাঁচ গ্রাম পুলিশসহ নয়জনকে কারাদণ্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। মঙ্গলবার সকালে ভোলা সদর উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী হাকিম মো. কাওছার হোসেন এই দণ্ডাদেশ দেন। এছাড়া মোহাম্মদ ও জসিম নামে দুই জেলেকে পাঁচ হাজার টাকা করে জরিমানা করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন ভোলার দৌলতখান উপজেলার মদনপুর ইউনিয়নের গ্রাম পুলিশের দফাদার মো. ইউছুফ, একই ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের গ্রাম পুলিশ মো. মোশারেফ হোসেন (হেজু), ২নং ওয়র্ডের গ্রাম পুলিশ আব্দুল মান্নান, ৩নং ওয়ার্ডের গ্রাম পুলিশ মো. হেলাল ও ৫নং ওয়ার্ডের গ্রাম পুলিশ মো. লোকমান হোসেন। দণ্ড পাওয়া অন্যরা হলেন সদর উপজেলার মো. নুরউদ্দিন, মো. ইউছুফ, মো. অহিদ এবং মো. ইব্রাহীম।

সদর উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা মো. আসাদুজ্জামান জানান, মঙ্গলবার সকালে মৎস্য বিভাগ ও নৌ পুলিশের একটি দল ভোলার মেঘনা নদীতে অভিযানে নামে। এ সময় নদীর ভোলার খাল পয়েন্ট থেকে একটি ট্রলারে পাঁচজন গ্রাম পুলিশকে পোশাক পরিহিত অবস্থায় মাছ ও জালসহ আটক করা হয়। এছাড়া তাদের কাছ থেকে ১০ কেজি মা ইলিশ ও এক হাজার মিটার কারেন্ট জাল জব্দ করা হয়। আসাদুজ্জামান আরও জানান, গ্রাম পুলিশ ছাড়াও অভিযানে আরও ছয় জেলেকে আটক করা হয়েছে। আটক নয়জনের মধ্যে পাঁচ গ্রাম পুলিশ ও চার জেলেকে এক বছর করে কারাদণ্ড দেওয়া হয়। এছাড়া দুই জেলেকে পাঁচ হাজার টাকা অর্থদণ্ড করা হয়। দেশের ইলিশ সম্পদ রক্ষায় মৎস্য বিভাগের এই অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও জানান তিনি।


সম্পাদক : জয়নাল হাজারী।  ফোন : ০২-৯১২২৬৪৯
মোঃ ইব্রাহিম পাটোয়ারী কর্তৃক ফ্যাট নং- এস-১, জেএমসি টাওয়ার, বাড়ি নং-১৮, রোড নং-১৩ (নতুন), সোবহানবাগ, ধানমন্ডি, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
এবং সিটি প্রেস, ইত্তেফাক ভবন, ১/আর কে মিশন রোড, ঢাকা-১২০৩ থেকে মুদ্রিত।
আবু রায়হান (বার্তা সম্পাদক) মোবাইল : ০১৯৬০৪৯৫৯৭০ মোবাইল : ০১৯২৮-১৯১২৯১। মো: জসিম উদ্দিন (চীফ রিপোর্টার) মোবাইল : ০১৭২৪১২৭৫১৬।
বার্তা বিভাগ: ৯১২২৪৬৯, বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন: ০১৯৭৬৭০৯৯৭০ ই-মেইল : [email protected], Web : www.hazarikapratidin.com
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি