বৃহস্পতিবার, ২১ নভেম্বর, ২০১৯
ভারতের হামলায় পাকিস্তানের ১০ সেনা নিহত
Published : Monday, 21 October, 2019 at 7:52 PM

ভারতের হামলায় পাকিস্তানের ১০ সেনা নিহতআন্তর্জাতিক ডেস্ক ॥
ভারতীয় ভূখণ্ডে সন্ত্রাসীদের অনুপ্রবেশে সহায়তা করছে পাক সেনাবাহিনী। প্রতিবেশী দেশ পাকিস্তানের বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ এনে পাক অধ্যুষিত কাশ্মীরে হামলা চালিয়েছে ভারতীয় সেনাবাহিনী। রোববার সীমান্তে কয়েক দফা সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েছে দু'দেশের সেনাবাহিনী। ভারতের তরফ থেকে বলা হচ্ছে, তারা পাক অধ্যুষিত কাশ্মীরে সন্ত্রাসী ঘাঁটি ও চৌকিতে হামলা চালিয়েছে।
এতে সন্ত্রাসীদের তিনটি ক্যাম্প ধ্বংসে হয়েছে এবং ছয় থেকে ১০ জন পাক সেনা সদস্য নিহত হয়েছেন বলে ভারতীয় সেনাবাহিনীর প্রধান বিপিন রাওয়াত দাবি করেছেন। একটি সূত্র জানিয়েছে, কুপওয়ারা জেলার তাংঘর সেক্টরের বিপরীত পাশে অবস্থিত পাক অধিকৃত কাশ্মীরের নিলাম উপত্যকায় সন্ত্রাসীদের বেশ কিছু ঘাঁটি লক্ষ্য করে আর্টিলারি গোলাবারুদ দিয়ে হামলা চালানো হয়েছে। ভারতে সন্ত্রাসীদের অনুপ্রবেশে সহায়তা করায় পাক সেনাবাহিনীকে জবাব দেয়া হয়েছে বলেও উল্লেখ করা হয়েছে।
জেনারেল রাওয়াতের বরাত দিয়ে ভারতীয় সংবাদ সংস্থা এএনআই জানিয়েছে, পাকিস্তানের ৬ থেকে ১০ জন সেনা নিহত হয়েছে এবং সন্ত্রাসীদের তিনটি ক্যাম্প ধ্বংস হয়েছে। এছাড়া ৬ থেকে ১০ জন সন্ত্রাসীও নিহত হয়েছে বলে উল্লেখ করা হয়েছে। রোববার সকালের দিকে ভারত অধিকৃত কাশ্মীরের কুপওয়ারা সীমান্তে অস্ত্রবিরতি লঙ্ঘন করে পাক সেনাবাহিনীর ছোড়া গুলিতে ভারতীয় সেনাবাহিনীর দুই সদস্য ও এক বেসামরিক নাগরিক নিহত হওয়ার পর এই হামলা চালায় ভারত।
এএনআই বলছে, আজাদ কাশ্মীর থেকে ভারতীয় ভূখণ্ডে সন্ত্রাসীরা অনুপ্রবেশের সক্রিয় চেষ্টা করেছে। পরে ভারতীয় সেনা সদস্যরা পাক অধিকৃত কাশ্মীরের তাঙধর সেক্টরে আর্টিলারি গোলাবারুদ নিক্ষেপ শুরু করে।
এদিকে, ভারত নিয়ন্ত্রিত জম্মু-কাশ্মীরের কাঠুয়া জেলার হিরানগর সেক্টরের মানিয়ারি গ্রামে অস্ত্রবিরতি চুক্তি লঙ্ঘন করে হামলা চালিয়েছে পাক রেঞ্জার্স। বেসামরিক এলাকা লক্ষ্য করে ভারী অস্ত্র দিয়ে গুলি এবং মর্টার শেল নিক্ষেপ করা হয়েছে। পাক সেনাবাহিনীর ওই হামলায় মানিয়ারি গ্রামে অন্তত তিনজন দগ্ধ হয়েছেন।
জেনারেল রাওয়াত বলেন, গোপন তথ্যের ভিত্তিতে আমরা জানতে পারি যে, পিরপাঞ্জল এলাকায় কিছু সন্ত্রাসী ক্যাম্প সক্রিয় হয়ে উঠেছে। সেখানে সন্ত্রাসীরা আশ্রয় নিয়েছে। তারা সেখান থেকে ভারতে অনুপ্রবেশের চেষ্টা করছিল।
পাকিস্তান প্রথম যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন করে গোলাগুলি করায় ভারতও এর জবাব দিয়েছি বলে উল্লেখ করেন তিনি। তবে সন্ত্রাসীরা অনুপ্রবেশের আগেই সেখানে হামলা চালানো হয়।


সম্পাদক : জয়নাল হাজারী।  ফোন : ০২-৯১২২৬৪৯
মোঃ ইব্রাহিম পাটোয়ারী কর্তৃক ফ্যাট নং- এস-১, জেএমসি টাওয়ার, বাড়ি নং-১৮, রোড নং-১৩ (নতুন), সোবহানবাগ, ধানমন্ডি, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
এবং সিটি প্রেস, ইত্তেফাক ভবন, ১/আর কে মিশন রোড, ঢাকা-১২০৩ থেকে মুদ্রিত।
আবু রায়হান (বার্তা সম্পাদক) মোবাইল : ০১৯৬০৪৯৫৯৭০ মোবাইল : ০১৯২৮-১৯১২৯১। মো: জসিম উদ্দিন (চীফ রিপোর্টার) মোবাইল : ০১৭২৪১২৭৫১৬।
বার্তা বিভাগ: ৯১২২৪৬৯, বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন: ০১৯৭৬৭০৯৯৭০ ই-মেইল : [email protected], Web : www.hazarikapratidin.com
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি