বৃহস্পতিবার, ২১ নভেম্বর, ২০১৯
যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে দোকানলুট : গ্রেপ্তার ২
কুমিল্লা প্রতিনিধি ॥
Published : Wednesday, 16 October, 2019 at 8:09 PM

যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে দোকানলুট : গ্রেপ্তার ২কুমিল্লার মনোহরগঞ্জে পূর্ববিরোধের জের ধরে স্থানীয় এক যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যাচেষ্টার ঘটনায় ২জনকে গ্রেপ্তার করে আদালতে প্রেরণ করেছে মনোহরগঞ্জ থানা পুলিশ। উপজেলার বিপুলাসার ইউনিয়নের সাইকচাইল বাজারে এ ঘটনা ঘটে। আহত যুবলীগ নেতা আকতারুজ্জামান সুমন সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান মোবারক উল্লাহর ছেলে। তিনি ইউনিয়ন যুবলীগের সহ-সম্পাদক ও সাইকচাইল বাজারের ‘মায়ের দোয়া ভ্যারাইটিজ ষ্টোর’ এর সত্ত¡াধিকারী। এ ঘটনায় আহত সুমনের ভাই ইউনিয়ন যুবলীগ সভাপতি ইকবাল হোসেন বাদী হয়ে মনোহরগঞ্জ থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।
অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, পূর্ব বিরোধের জের ধরে গত রোববার রাত ৮টায় সাইকচাইল গ্রামের মোঃ সাদেক আলীর ছেলে রবিউল হোসেন (৩৩), মৃত শামসুল হক মেম্বারের ছেলে কামরুজ্জামান সুজন (৩০), হেদায়েত উল্লাহর ছেলে শাহজাহান সাজু (৪২) ও মৃত নুরুল হকের ছেলে মোঃ সেলিম (৪০) অজ্ঞাত কয়েকজনকে নিয়ে আক্তারুজ্জামান সুমনের দোকানে হামলা চালায়। দলবদ্ধ ভাবে এলোপাথাড়ি কিল ঘুষির এক পর্যায়ে সুমনের মাথা লক্ষ্য করে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করে রবিউল হোসেন। আঘাতটি লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়ে সুমনের বাম হাতের কব্জি ৯০ শতাংশ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। এসময় কামরুজ্জামান সুজনের অস্ত্রের আঘাতে সুমনের ডান হাতের বাহুতে মারাত্মক জখম হয়। সুমনের চিৎকার শুনে বাজারের ব্যবসায়ীরা জড়ো হতে শুরু করলে হামলাকারীরা দোকানের ক্যাশ বাক্সে থাকা নগদ ২ লাখ ৩৭ হাজার টাকা, ৮০ হাজার টাকা সমমূল্যের রিচার্জ/এমবি কার্ড এবং প্রায় ৪০ হাজার টাকা সমমূল্যের দু’টি স্যামসাং এন্ড্রয়েড মোবাইল ফোন হাতিয়ে নিয়ে ঘটনাস্থল ত্যাগ করে।

গুরুতর আহত অবস্থায় আক্তারুজ্জামান সুমনকে লাকসাম জেনারেল হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসার পর ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে স্থানান্তর করেন চিকিৎসকরা। এ বিষয়ে আহত সুমনের ভাই, ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি ইকবাল হোসেন (অভিযোগকারী) বলেন, ‘পূর্ব পরিকল্পিত ভাবে হত্যার উদ্দেশ্যে আমার ভাইয়ের উপর হামলা করা হয়েছে। হামলাকারীরা এলাকায় মাদক ব্যবসা ও সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের জড়িত। আমি এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচার চাই।

অভিযুক্ত শাহজাহান সাজু বলেন, ‘সুমনের সাথে আমার কোনো পূর্ববিরোধ নেই। আমি এ ঘটনার সাথে জড়িত নেই। ওইদিন আমি ঔষধ কিনতে সাইকচাইল বাজারে গিয়ে দেখি কিরিজ (অস্ত্র) হাতে নিয়ে রবিউল হোসেন চিৎকার-চেঁচামেচি করতেছে। বাজারের ব্যবসায়ীরাসহ আমরা তাকে থামানোর চেষ্টাও করেছি। এর কিছুক্ষণ পরই শুনতে পাই রবিউল সুমনকে কুপিয়েছে। আমি তাৎক্ষণিক সুমনকে দেখতেও গেছি। এখন শুনতেছি আমাকেও নাকি আসামী করা হয়েছে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিৎ করে মনোহরগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ মেজবাহ উদ্দিন ভূঁইয়া জানান, আহত সুমনের ভাই, ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি ইকবাল হোসেনের অভিযোগের প্রেক্ষিতে ২জনকে গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে। বাকি আসামীদের গ্রেপ্তারে পুলিশের অভিযান অব্যাহত আছে।

এদিকে যুবলীগ নেতা ও ব্যবসায়ী আকতারুজ্জামান সুমনের উপর নৃশংসা হামলার ঘটনায় ক্ষুব্ধ এলাকাবাসী। এঘটনার প্রতিবাদ ও বিচারের দাবিতে মঙ্গলবার সকালে প্রতিবাদ সভা করেছে সাইকচাইল বাজার ব্যবসায়ী সমিতি। প্রতিবাদ সভায় উপস্থিত ছিলেন, ইউপি চেয়ারম্যান সায়েদুর রহমান দুলাল, প্যানেল চেয়ারম্যান সিদ্দিকুর রহমান, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি মাহফুজুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক আবুল কাশেম ভেন্ডার, আওয়ামী লীগ নেতা নুরুল আলম হিরণ, ব্যবসায়ী মোবারক উল্লাহ কালা মিয়া, সিরাজুল ইসলাম, মিজানুর রহমান, আবু নওশাদ প্রমুখ।


সম্পাদক : জয়নাল হাজারী।  ফোন : ০২-৯১২২৬৪৯
মোঃ ইব্রাহিম পাটোয়ারী কর্তৃক ফ্যাট নং- এস-১, জেএমসি টাওয়ার, বাড়ি নং-১৮, রোড নং-১৩ (নতুন), সোবহানবাগ, ধানমন্ডি, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
এবং সিটি প্রেস, ইত্তেফাক ভবন, ১/আর কে মিশন রোড, ঢাকা-১২০৩ থেকে মুদ্রিত।
আবু রায়হান (বার্তা সম্পাদক) মোবাইল : ০১৯৬০৪৯৫৯৭০ মোবাইল : ০১৯২৮-১৯১২৯১। মো: জসিম উদ্দিন (চীফ রিপোর্টার) মোবাইল : ০১৭২৪১২৭৫১৬।
বার্তা বিভাগ: ৯১২২৪৬৯, বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন: ০১৯৭৬৭০৯৯৭০ ই-মেইল : [email protected], Web : www.hazarikapratidin.com
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি