বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
মুম্বাইয়ের কাছেই বন্দী শিবির বানাচ্ছে ভারত
Published : Monday, 9 September, 2019 at 8:16 PM

 মুম্বাইয়ের কাছেই বন্দী শিবির বানাচ্ছে ভারতআন্তর্জাতিক ডেস্ক ॥
মুম্বাইয়ের কাছেই বন্দী শিবির বানানোর পরিকল্পনা করছে ভারত। ইতোমধ্যেই অবৈধ অনুপ্রবেশকারীদের জন্য বন্দী শিবির তৈরির জন্য জমি চেয়ে নাবি মুম্বাই কর্তৃপক্ষের কাছে চিঠি লিখেছে মহারাষ্ট্রের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।
এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দু'সপ্তাহ আগেই আসামে এনআরসি বা জাতীয় নাগরিকপঞ্জীর চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে। ওই তালিকা থেকে বাদ পড়েছেন ১৯ লাখ মানুষ। দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম জনবসতিপূর্ণ রাজ্য মহারাষ্ট্রেও এমন সম্ভাবনা রয়েছে।
মহারাষ্ট্রের নগর এবং শিল্পোন্নয়ন কর্পোরেশন (সিডকো) জানিয়েছে, নেরুল এলাকায় দুই থেকে তিন একর জমি চেয়ে তাদের কাছ থেকে জমি চাওয়া হয়েছে। ওই এলাকাটি জনবসতিপূর্ণ একটি বাণিজ্যিক এলাকা এবং মুম্বাই শহর থেকে ২০ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত। সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের তরফ থেকে এ ধরনের কোনো চিঠি পাঠানোর কথা অস্বীকার করা হয়েছে। তবে চলতি বছরের শুরুর দিকে কেন্দ্রের নির্দেশিকা অনুযায়ী, দেশের যেসব এলাকায় বেশী অনুপ্রবেশকারীর বাস রয়েছে, সেখানেই বন্দী শিবির তৈরি করতে হবে।
মহারাষ্ট্রেও এ ধরনের বন্দী শিবির তৈরি হতে পারে। কারণ কয়েকমাস পরেই মহারাষ্ট্রে বিধানসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এর আগে শিব সেনার তরফ থেকে দাবি করা হয়েছে যে, অবৈধ বাংলাদেশিরা মুম্বাইয়ে বসবাস করছে এবং বিভিন্ন ক্ষেত্রে কাজ করছে।
গত সপ্তাহে সংবাদসংস্থা এএনআইকে শিব সেনা নেতা অরবিন্দ সাওয়ান্ত বলেন, প্রকৃত নাগরিকদের সমস্যার সমাধানে আসামে জাতীয় নাগরিকপঞ্জী তৈরির প্রয়োজন ছিল। সে কারণে আমরা এনআরসির পদক্ষেপকে সমর্থন জানাই। আমরা এখান থেকে বাংলাদেশিদের তাড়াতে মুম্বাইয়েও একই পদক্ষেপ চাই।


সম্পাদক : জয়নাল হাজারী।  ফোন : ০২-৯১২২৬৪৯
মোঃ ইব্রাহিম পাটোয়ারী কর্তৃক ফ্যাট নং- এস-১, জেএমসি টাওয়ার, বাড়ি নং-১৮, রোড নং-১৩ (নতুন), সোবহানবাগ, ধানমন্ডি, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
এবং সিটি প্রেস, ইত্তেফাক ভবন, ১/আর কে মিশন রোড, ঢাকা-১২০৩ থেকে মুদ্রিত।
আবু রায়হান (বার্তা সম্পাদক) মোবাইল : ০১৯৬০৪৯৫৯৭০ মোবাইল : ০১৯২৮-১৯১২৯১। মো: জসিম উদ্দিন (চীফ রিপোর্টার) মোবাইল : ০১৭২৪১২৭৫১৬।
বার্তা বিভাগ: ৯১২২৪৬৯, বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন: ০১৯৭৬৭০৯৯৭০ ই-মেইল : [email protected], Web : www.hazarikapratidin.com
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি