বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
ফেনীর ফুলগাজীতে রাস্তার পাশে নবজাতক, হাসপাতালে ভর্তি
Published : Monday, 9 September, 2019 at 7:04 PM

ফেনীর ফুলগাজীতে রাস্তার পাশে নবজাতক, হাসপাতালে ভর্তিফেনী প্রতিনিধি ॥
ফুলগাজীর আনন্দপুরে রাস্তার পাশ থেকে এক নবজাতকে জিবিত উদ্ধার করেছে স্থানীয়রা। রোববার রাত সাড়ে ৯টার দিকে ফেনী-পরশুরাম সড়কের ফুলগাজীর আনন্দপুরে বোর্ড অফিসের দক্ষিনে রাস্তার পাশ থেকে স্থানীয় যুবক আবুল বশর ড্রাইভার নবজাতক কন্যা সন্তানটিকে উদ্ধার করে ফেনী জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যায়। বর্তমানে নবজাতকটি ফেনী জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আছে। হাসপাতাল সূত্র জানায়, ফেনী জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন নবজাতকটি সুস্থ্য রয়েছে। ডাক্তারদের পরামর্শ অনুযায়ী ফেনীর স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন সহায়ের তত্বাবধানে রয়েছে। স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন সহায়’র সদস্য দুলাল তালুকদার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে এক স্টেটাসে জানান, ‘আমাদের এই সমাজেই জন্মের পরপর জীবন্ত নবজাতককে রাস্তায় বা ডাস্টবিনে ফেলে দেওয়া হচ্ছে। কোনো কোনো নবজাতক শিয়াল-কুকুরের খাবারে পরিণত হচ্ছে। কিছু নবজাতক অনাত্মীয় গুটি কয়েক মানুষের দয়ায় পৃথিবীর আলো দেখার সুযোগ পাচ্ছে। কিন্তু প্রশ্ন হলো, জীবন্ত নবজাতককে ফেলে দেওয়াই সব সমস্যার সমাধান কি না। নবজাতক ফেলে দেওয়ার পর, তাকে মৃত বা জীবন্ত উদ্ধারের পর নবজাতকের অদৃশ্য জন্মদাত্রী মা নিজের বুকের ধন কীভাবে রাস্তায় ফেলে দিলেন সে প্রশ্ন মনে এসে যায়। অনেক ‘নিঃসন্তান দম্পতিরা আইনগত অভিভাবকত্ব নিতে হন্যে হয়ে বিভিন্ন জায়গায় খোঁজ নিচ্ছেন প্রতিদিন। অন্যদিকে, কেউ না কেউ সদ্য জন্ম নেওয়া নিজের সন্তানকে কুকুর-বিড়ালের সামনে ফেলে যাচ্ছেন। জীবিত এসব নবজাতকের দিকে তাকালে মনে হয়, আহা, নবজাতকটির তো কোনো দোষ ছিল না।


সম্পাদক : জয়নাল হাজারী।  ফোন : ০২-৯১২২৬৪৯
মোঃ ইব্রাহিম পাটোয়ারী কর্তৃক ফ্যাট নং- এস-১, জেএমসি টাওয়ার, বাড়ি নং-১৮, রোড নং-১৩ (নতুন), সোবহানবাগ, ধানমন্ডি, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
এবং সিটি প্রেস, ইত্তেফাক ভবন, ১/আর কে মিশন রোড, ঢাকা-১২০৩ থেকে মুদ্রিত।
আবু রায়হান (বার্তা সম্পাদক) মোবাইল : ০১৯৬০৪৯৫৯৭০ মোবাইল : ০১৯২৮-১৯১২৯১। মো: জসিম উদ্দিন (চীফ রিপোর্টার) মোবাইল : ০১৭২৪১২৭৫১৬।
বার্তা বিভাগ: ৯১২২৪৬৯, বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন: ০১৯৭৬৭০৯৯৭০ ই-মেইল : [email protected], Web : www.hazarikapratidin.com
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি