বুধবার, ২৩ অক্টোবর, ২০১৯
ফেনী নদীর চর দখল নিতে দুটি পক্ষ মরিয়া, সংঘর্ষের আশঙ্কা
হাজারিকা অনলাইন ডেস্ক
Published : Sunday, 7 July, 2019 at 7:33 PM

ফেনী নদীর চর দখল নিতে দুটি পক্ষ মরিয়া, সংঘর্ষের আশঙ্কাছাগলনাইয়া উপজেলার ঘোপাল ইউনিয়নের পাশাপাশি লালার চর, আলোক দিয়া, নিজকুঞ্জরা গ্রামের বিশাল এলাকাজুড়ে প্রায় ১০০ একর চর দখল নিয়ে দুটি বিবদমান গ্রুপ মরিয়া হয়ে উঠেছে। থানা পুলিশ সংঘর্ষ এড়াতে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানকে চৌকিদার দিয়ে পাহারা দেওয়ার ব্যবস্থা করতে বলেছে। ইউপি চেয়ারম্যান আজিজুল হক মানিক জানান, তিনজন চৌকিদার ও দুজন স্থানীয় বিশ্বস্ত লোক দিয়ে দুপক্ষ মীমাংসায় না আসা পর্যন্ত ইউনিয়ন পরিষদের আওতায় থাকবে জেগে ওঠা দখল করা চর ও এর মধ্যে থাকা মাছচাষের লেক ও দীঘিগুলো। জমি হারানো পূর্বপুরুষদের ওয়ারিশরা এই চরগুলো দখলে নিতে চায়। কিন্তু বাদ সাধে প্রভাবশালী ও রাজনৈতিক দলে আশ্রয় চাওয়া ও পাওয়া বিভিন্ন ব্যক্তি। নদীভাঙনের কারণে মিরসরাই উপজেলার পূর্ব হিঙ্গুলীতে চলে যাওয়া ছাগলনাইয়ার দাগনভুইয়া বাড়ির মৃত মনা মিয়ার ছেলে মনির আহাম্মদ জানান, পশ্চিম হিঙ্গুলী মৌজার আরএম সিট নং-১, জেএল নং ২২ এর আয়তন ১২১৮/২, ১৭, ৭, ২৪, ২৭, ২৮, ১১, ৩০, ১৮, ২২, ১৫, ১, ১০, ২৯, ৩১, ১৪৩৫/১৭, ৯, ২৪, ১৩৭০/৪নং খতিয়ানে ৪৪টি দাগের ২৬ একর জায়গা তার ও তার বংশধরদের। মনির জানান, তিনি এই জমিগুলো ফিরে পেতে চট্টগ্রাম জেলার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) বরাবর আবেদন করেছেন। আবেদনে মনির তার নাম ছাড়াও সাতজনের নাম দেন। এই সাতজন জানান, তাদের পূর্বপুরুষরা এই জায়গাগুলোতে বসবাস করত। নদী তাদের বসতবাড়ি ভাসিয়ে নিয়ে গিয়েছিল। কালের পরিক্রমায় তা আজ চরে রূপান্তরিত হওয়ায় তারা তাদের সম্পত্তি দখলে নিতে চান। কিন্তু একটি পক্ষ প্রভাব দেখিয়ে তাদের মৌরসি সম্পত্তিগুলো দখলে নিতে চায়। জীবন থাকতে তারা তা হতে দেবেন না বলেও হুঁশিয়ার দেন। অন্যদিকে, ছাগলনাইয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের কমিটির সদস্য জাহাঙ্গীর আলমসহ ১৫-২০ জনের একটি সক্রিয় গ্রুপ চরগুলোকে সরকারের ১নং খাস খতিয়ানের জায়গা দাবি করে মাছচাষসহ নানা ফসল আবাদ করছেন। চলতি মাসের মাঝামাঝি জাহাঙ্গীর গ্রুপের কাছে কী মূলে মাছচাষ করছে মর্মে কৈফিয়ত চায় মনির গ্রুপ। জাহাঙ্গীর এর কোনো সদুত্তর দিতে না পারায় মনির গ্রুপ জাহাঙ্গীরদের তাড়িয়ে দিয়ে লেক, হ্রদগুলোতে পাড় বেঁধে দীঘি করে মাছচাষ করে দখলে নেয় এবং পাড়ে বসতি স্থাপন করে। জাহাঙ্গীর গ্রুপ মনির গ্রুপকে পুনরায় দেশি অস্ত্র নিয়ে ধাওয়া দিলে উত্তেজনা চরম আকার ধারণ করে। সম্প্রতি ছাগলনাইয়া থানা পুলিশ উভয় পক্ষকে থানায় ডেকে বৈঠকের ব্যবস্থা করলে কোনো সমাধানে আসতে না পারায় থানা পুলিশ নিজেদের উদ্যোগে প্রাণহানির আশঙ্কায় স্থিতাবস্থা জারি করে। বৈঠকে উপস্থিত ইউপি চেয়ারম্যানকে মীমাংসা না হওয়া পর্যন্ত চৌকিদার দিয়ে পাহারার ব্যবস্থা করার সিদ্ধান্ত হয়। ওসি মেজবা উদ্দিন চর দখলে দুপক্ষের মধ্যে উত্তেজনার বিষয়টি জানিয়ে ঘটনাস্থলে স্থানীয় ইউনিয়ন চেয়ারম্যানের চৌকিদার দ্বারা পাহারা এবং পুলিশি টইল জোরদার করার কথা জানান। উপজেলা ভূমি কর্মকর্তা (এসি ল্যান্ড) হোসেন পাটোয়ারী দুপক্ষের চর দখলের প্রস্তুতির বিষয়টি জানার পর একজন সার্ভেয়ার পাঠিয়ে জমিগুলো নিরূপণ করতে বলেছেন।  


সম্পাদক : জয়নাল হাজারী।  ফোন : ০২-৯১২২৬৪৯
মোঃ ইব্রাহিম পাটোয়ারী কর্তৃক ফ্যাট নং- এস-১, জেএমসি টাওয়ার, বাড়ি নং-১৮, রোড নং-১৩ (নতুন), সোবহানবাগ, ধানমন্ডি, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
এবং সিটি প্রেস, ইত্তেফাক ভবন, ১/আর কে মিশন রোড, ঢাকা-১২০৩ থেকে মুদ্রিত।
আবু রায়হান (বার্তা সম্পাদক) মোবাইল : ০১৯৬০৪৯৫৯৭০ মোবাইল : ০১৯২৮-১৯১২৯১। মো: জসিম উদ্দিন (চীফ রিপোর্টার) মোবাইল : ০১৭২৪১২৭৫১৬।
বার্তা বিভাগ: ৯১২২৪৬৯, বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন: ০১৯৭৬৭০৯৯৭০ ই-মেইল : [email protected], Web : www.hazarikapratidin.com
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি