মঙ্গলবার, ২১ নভেম্বর, ২০১৭
ড. ইউনুস কোথায়, জানতে চান ওমর ফারুক চৌধুরী
Published : Wednesday, 13 September, 2017 at 9:05 PM

ড. ইউনুস কোথায়, জানতে চান ওমর ফারুক চৌধুরীস্টাফ রিপোর্টার॥
আওয়ামী যুবলীগের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোহাম্মদ ওমর ফারুক চৌধুরী বলেছেন, রোহিঙ্গা ইস্যুটা কিন্তু প্রমাণ করেছে বিশ্ব শান্তির একমাত্র নেতা রাষ্ট্র নায়ক শেখ হাসিনা। ১৯৪টি রাষ্ট্র স্বীকৃতি দিয়েছে রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার দর্শন। তিনি কি ভাবেন, কি চিন্তা করেন তা জাতিসংঘ কর্তৃক স্বীকৃত। জাতিসংঘে যদি কোন শান্তির দর্শন থাকে তাহলে একমাত্র রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার। রাজশাহীতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভা সফল করতে যুবলীগের কর্মীদের প্রতিনিধি সভায় যাওয়ার পথে টাঙ্গাইলের এলেঙ্গায় বিরতি রিসোর্টে যাত্রা বিরতিকালে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন। সাম্প্রতিক সময়ে বিএনপির অবস্থান নিয়ে তিনি বলেন, এখানে বিভ্রান্ত করার লোক থাকে। শয়তান তো থাকবেই। শয়তানের বুদ্ধি যা আছে তারা সেটি প্রয়োগ করবে। মানুষ এর বিচার করবে।
মোহাম্মদ ওমর ফারুক চৌধুরী বলেন, ইন্ধিরা গান্ধী যে রকম বাংলাদেশের শরণার্থীদের আশ্রয় দিয়েছিলেন, সেটা ইতিহাস হয়ে আছে। সেটি যে রকম মানবতার বিষয় হয়ে দাড়িয়েছিল। আজকে রোহিঙ্গার বিষয়টিও কিন্তু মানবতার। শরণার্থী সমস্যার সমাধানে যে মানবতাবাদের পদক্ষেপ রাষ্ট্র নায়ক শেখ হাসিনা নিয়েছেন আমরা আশাবাদী এর সমাধান অবশ্যই হবে। তিনিও ইতিহাস হয়ে থাকবেন। নোবেল বিজয়ীদের উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, শান্তিতে নোবেল পুরস্কার পেয়েছেন বারাক ওবামা। কিন্তু বারাক ওবামার কোন দর্শন জাতিসংঘে স্বীকৃত নেই। শান্তিতে নোবেল পেয়েছেন ড. ইউনুস। মায়ানমারের এ ঘটনায় তিনি কোথায়?
শান্তির জন্য নোবেল দেওয়া হয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, নোবেল জয়ি অং সান সূচি। তার দেশেই ঘটনাটা ঘটছে। আজকে যে মানবতার প্রশ্ন আসছে। যেখানে ইউরোপ প্রত্যেকটা বর্ডার সিল করে দিচ্ছে। সেই জায়গায় বাংলাদেশে রোহিঙ্গা ইস্যুতে এই শরণার্থীরা আসছেন। এটার জন্যও তো আজকে রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনা নোবেল পাওয়ার বিষয়।
পার্বত্য চট্রগ্রামের শান্তিচুক্তির কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, সেখানে তৃতীয় পক্ষ লাগেনি। দুই পক্ষই অস্ত্রধারী ছিল। সেখানে অস্ত্র ছাড়া কথার মধ্য দিয়ে আলাপ আলোচনার ভিত্তিতে, সমঝোতার ভিত্তিতে তিনি সে কাজটি করেছেন। পার্বত্য চট্রগ্রাম চুক্তি হয়েছে।
তিনি আরো বলেন, এই যে শান্তিবাদি চেতনা বলেন। মানবতাবাদী পদক্ষেপের কারণে সারা বিশ্বে কিন্তু নতুন দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে রাষ্ট্র নায়ক শেখ হাসিনা। বিশ্বব্যাপি শরনার্থী সমস্যা সমাধানের আলোকবর্তিকা হিসেবে তিনি উদ্ভাসিত হয়েছেন। এটি কিন্তু আজকে বিশ্বে স্বীকৃতি পেয়েছে।
বিএনপির রাজনীতির প্রত্যেকটি ধারাবাহিকতায় মানুষকে বিভ্রান্ত করে দাবি করে তিনি বলেন, মানুষ পুড়িয়ে, বাসে আগুন দিয়ে, পুলিশের মাথা থেতলে দিয়ে, বায়তুল মোকারমে কোরআন শরীফ পুড়িয়ে রাজনীতি। এই যে পোড়া মানুষের গন্ধ বিএনপির। সেই পোড়া মানুষের গন্ধ কিন্তু এখন নোবেল জয়ী অং সান সূচীর গায়েও কিন্তু আসছে। রোহিঙ্গা ইস্যুটা এখন একটা মানবতার ইস্যু। আমরা বিশ্বাস করি, আমরা আশাবাদী এই ইস্যুটি জাতীয় সংসদে উত্থাপিত হয়েছে। জাতিসংঘে এটা নিয়ে কথা হবে।
যুবক মানেই সৃষ্টিশীল উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমাদের কার্যক্রম গুলো যাতে সুন্দর থাকে। আমাদের পদক্ষেপ যাতে সঠিক থাকে। মানুষের দুঃক্ষ কষ্টের সময় মানুষের পাশে থাকা এটাই আমরা শিখেছি। রাজনীতি মানে সমঝোতাশীল, এটাই আমাদের শিখিয়েছেন রাষ্ট্র নায়ক শেখ হাসিনা।
এসময় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক হারুন অর রশিদ, টাঙ্গাইল জেলা যুবলীগের সভাপতি রেজাউর রহমান চঞ্চল, সহ-সভাপতি খান আহমেদ শুভ সহ কেন্দ্রিয়, জেলা ও উপজেলা যুবলীগের নেতাকর্মীরা।



সম্পাদক : জয়নাল হাজারী। ফোন : ০২-৯১২২৬৪৯, ০১৭৫৬৯৩৮৩৩৮
মোঃ ইব্রাহিম পাটোয়ারী কর্তৃক ফ্যাট নং- এস-১, জেএমসি টাওয়ার, বাড়ি নং-১৮, রোড নং-১৩ (নতুন), সোবহানবাগ, ধানমন্ডি, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
এবং সিটি প্রেস, ইত্তেফাক ভবন, ১/আর কে মিশন রোড, ঢাকা-১২০৩ থেকে মুদ্রিত।
আইন উপদেষ্টা : এ্যাডভোকেট এম. সাইফুল আলম। আবু রায়হান (বার্তা সম্পাদক) মোবাইল : ০১৯৬০৪৯৫৯৭০ মোবাইল : ০১৯২৮-১৯১২৯১। মো: জসিম উদ্দিন (চীফ রিপোর্টার) মোবাইল : ০১৭২৪১২৭৫১৬।
বার্তা বিভাগ: ৯১২২৪৬৯, বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন: ০১৯৭৬৭০৯৯৭০ ই-মেইল : hazarikabd@gmail.com, Web : www.hazarikapratidin.com
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি