মঙ্গলবার, ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২১
ডেঙ্গু: আক্রান্তে রেকর্ড, ঢাকার হাসপাতাগুলোতে বাড়ছে চাপ
Published : Sunday, 25 July, 2021 at 9:22 PM

স্টাফ রিপোর্টার:
রাজধানীকে ক্রমাগত বাড়ছে ডেঙ্গু রোগী। গত একদিনে ঢাকায় সর্বোচ্চ সংখ্যক ১০৪ জন রোগী ভর্তি হয়েছেন বিভিন্ন হাসপাতালে।  
স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমারজেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুম থেকে এই তথ্য পাওয়া গেছে।
হেলথ ইমারজেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের শনিবারের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানা যায়,  বর্তমানে সারা দেশে বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ৪২২ জন রোগী। ঢাকার ৪১টি সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে বর্তমানে মোট ভর্তি রোগীর সংখ্যা ৪১৯ জন। অন্যান্য বিভাগে বিভিন্ন হাসপাতালে বর্তমানে ৩ জন রোগী ভর্তি হয়েছেন। এ বছরের ১ জানুয়ারি থেকে এ পর্যন্ত  ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে ১ হাজার ৫৭৪ জন রোগী ভর্তি হয়েছেন বিভিন্ন হাসপাতালে। তাদের মধ্যে সুস্থ হয়ে হাসপাতাল ছেড়ে গেছেন ১ হাজার ১৪৯ জন রোগী।
এ বছর ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন তিন জন; যাদের মধ্যে এক জন ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, আরেকজন একটি সংবাদমাধ্যমের কর্মী। শনিবারের সংবাদ বিজ্ঞপ্তি থেকে জানা গেছে, ঢাকার সরকারি হাসপাতালগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি ৫৯ জন রোগী ভর্তি রয়েছেন  পুরান ঢাকার এসএমসি ও মিটফোর্ড হাসপাতালে। এছাড়াও ঢাকা শিশু হাসপাতালে ২৩ জন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে ২ জন, পিলখানার বিজিবি হাসপাতালে ১ জন, সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে ১৬ জন রোগী ভর্তি রয়েছেন।
বেসরকারি হাসপাতালগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি ৬১ জন রোগী ভর্তি হয়েছেন এভারকেয়ার হাসপাতালে, কাকরাইলের ইসলামী ব্যাংক সেন্ট্রাল হাসপাতালে ৪৪ জন, খিলগাঁওয়ের খিদমা হাসপাতালে ২৭ জন, স্কয়ার হাসপাতালে ২০ জন রোগী ভর্তি হয়েছেন।
গত বছর ১ লাখ ১ হাজার ৩৫৪ জন ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছিলেন, মারা গিয়েছিলেন ১৭৯ জন।
স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মুখপাত্র অধ্যাপক ডা. রোবেদ আমিন জানিয়েছেন, বর্ষা মৌসুমে সারা দেশে ডেঙ্গুর প্রকোপ বাড়ছে। ঢাকার পর পার্বত্য চট্টগ্রামের তিন জেলায় ডেঙ্গুর উপদ্রবে রোগীর সংখ্যা বাড়ছে, যাদের অনেকেই হাসপাতালের আইসিউতে চিকিৎসাধীন।
করোনাভাইরাসে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার পাশাপাশি ডেঙ্গু প্রতিরোধে পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতা মেনে চলার পরামর্শ দেন রোবেদ আমিন।
এদিকে ডেঙ্গু প্রতিরোধে কর্মসূচি জোরদার করেছে স্থানীয় সরকার বিভাগ। সরকারি, বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের ভবনে এডিস মশার লার্ভা পাওয়া গেলে জেল, জরিমানার বিধান রাখা হয়েছে। রাজধানীতে নিয়মিত অভিযান পরিচালনা করছে ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন। সরকারি, বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের ভবনে এডিস মশার লার্ভা পাওয়া গেলে জেল, জরিমানার বিধান রাখা হয়েছে।
 




সম্পাদক : জয়নাল হাজারী: মোবা: ০১৩১২৩৩৩০৮০।  প্রকাশক: মোঃ ইব্রাহিম পাটোয়ারী।
সহ সম্পাদক- রুবেল হাসান: ০১৮৩২৯৯২৪১২।  বার্তা সম্পাদক : জসীম উদ্দিন : ০১৭২৪১২৭৫১৬।  চীফ রিপোর্টার: ডিবি বৈদ্য: ০১৭৩৬-১৪৯২১০।  সার্কুলেশন ম্যানেজার : আরিফ হোসেন জয়, মোবাইল ঃ ০১৮৪০০৯৮৫২১।  রিপোর্টার: ইফাত হোসেন চৌধুরী: ০১৬৭৭১৫০২৮৭।  রিপোর্টার: নাসির উদ্দিন হাজারী পিটু: ০১৯৭৮৭৬৯৭৪৭।  মফস্বল সম্পাদক: রাসেল: মোবা:০১৭১১০৩২২৪৭   প্রকাশক কর্তৃক ফ্ল্যাট নং- এস-১, জেএমসি টাওয়ার, বাড়ি নং-১৮, রোড নং-১৩ (নতুন), সোবহানবাগ, ধানমন্ডি, ঢাকা থেকে প্রকাশিত এবং সিটি প্রেস, ইত্তেফাক ভবন, ১/আর কে মিশন রোড, ঢাকা-১২০৩ থেকে মুদ্রিত।  বার্তা, বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন বিভাগ: ০২-৪১০২০০৬৪।  ই-মেইল : [email protected], web : www.hazarikapratidin.com
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি