শুক্রবার, ০৫ মার্চ, 2০২1
আ.লীগ সমর্থকদের সাথে সংঘর্ষে নাড়িভুঁড়ি বের হয়ে গেছে বিএনপিকর্মীর
Published : Saturday, 16 January, 2021 at 6:06 PM

জেলা প্রতিনিধি ॥
নবীগঞ্জ পৌর নির্বাচনকে কেন্দ্র করে মধ্য রাতে বিএনপি ও আওয়ামী লীগ প্রার্থী সমর্থকদের মধ্যে হামলা ও সংঘর্ষ হয়েছে। এতে আহত বিএনপিকর্মী সফিক মিয়ার (২২) ভুঁড়ি বের হয়ে গেছে। তাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তিনি চরগাঁও গ্রামের মন্নাফ মিয়ার পুত্র। এ ছাড়া একই গ্রামের জব্বার মিয়ার পুত্র মিজান মিয়া (৩৫), নুর ইসলামের পুত্র নাহিদ মিয়া এবং সুজাপুর গ্রামের ছাত্রলীগ নেতা জাহেদ রুবেলসহ আহতদের নবীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সসহ বিভিন্ন স্থানে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।  গতকাল মধ্যরাত সোয়া ১টার দিকে গয়াহরি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কাছে ঘটনাটি ঘটেছে। বিএনপি ও আওয়ামী লীগ সমর্থকদের সংঘর্ষের পর নবীগঞ্জ পৌর এলাকার সর্বত্র উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। বর্তমানে ওই এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। এ ব্যাপারে কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেতা মুকিত চৌধুরীর গণমাধ্যমকে তিনি জানান, গয়াহরি গ্রামে তিনি অবস্থান করছিলেন। এ সময় তারা খবর পান গয়া হরি প্রাইমারী বিদ্যালয়ের কাছে বিএনপির প্রার্থী ছাবির আহমেদ চৌধুরীর নেতৃত্বে তার কর্মী সমর্থকরা আওয়ামী লীগ প্রার্থী রাহেল চৌধুরীর উপর হামলা ও তার গাড়ি ভাংচুর করেছে। এতে উভয় পক্ষের চারজন আহত হয়েছে।
অপর দিকে বিএনপির মনোনীত মেয়র প্রার্থী ছাবির আহমেদ চৌধুরী জানান, তিনি গয়াহরি গ্রামে রবিন্দ্র দাশ মেলাইর বাড়িতে গতকাল রাতে সংক্রান্তির দাওয়াতের যান। সেখান থেকে ফেরার সময় ওই বাড়ির কাছে আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী গোলাম রসুল চৌধুরী রাহেলের ভাই শায়েল চৌধুরীর সাথে দেখা হয়। এ সময় তার সাথে কুশল বিনিময় চলাকালে আওয়ামী লীগ প্রার্থী রাহেল চৌধুরী সেখানে পৌছায়। এ সময় রাহেল উত্তেজিত হয়ে ছাবির আহমেদ চৌধুরীর সাথে কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে তার দিকে তেড়ে আসেন। তিনি গাড়ি নিয়ে চলে যেতে চাইলে তাকে বাধা দেয়া হয়। এ সময় তার সমর্থক সফিক মিয়াকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করলে তার পেটের ভুঁড়ি বের হয়ে যায়। তাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় সিলেট হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তিনি বলেন, ঘটনার সময় রাহেল তার প্রাইভেট কারটি নিজেই ভাংচুর করেছে। ঘটনাটি ছড়িয়ে পড়লে দুদলের পক্ষের লোকজন ঘটনাস্থলে পৌঁছয়। এতে উভয় পক্ষের মাঝে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়, হট্টগোলে প্রায় ২০ জন নেতাকর্মী আহত হন। এদিকে যেকোনো পরিস্থিতি মোকাবেলায় পুলিশ, র‌্যাবসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সতর্ক অবস্থায় রয়েছে বলে জানা গেছে।





সম্পাদক : জয়নাল হাজারী।  ফোন : ০২-৯১২২৬৪৯
মোঃ ইব্রাহিম পাটোয়ারী কর্তৃক ফ্যাট নং- এস-১, জেএমসি টাওয়ার, বাড়ি নং-১৮, রোড নং-১৩ (নতুন), সোবহানবাগ, ধানমন্ডি, ঢাকা থেকে প্রকাশিত
এবং সিটি প্রেস, ইত্তেফাক ভবন, ১/আর কে মিশন রোড, ঢাকা-১২০৩ থেকে মুদ্রিত।
আবু রায়হান (বার্তা সম্পাদক) মোবাইল : ০১৯৬০৪৯৫৯৭০ মোবাইল : ০১৯২৮-১৯১২৯১। মো: জসিম উদ্দিন (চীফ রিপোর্টার) মোবাইল : ০১৭২৪১২৭৫১৬।
বার্তা বিভাগ: ৯১২২৪৬৯, বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন: ০১৯৭৬৭০৯৯৭০ ই-মেইল : [email protected], Web : www.hazarikapratidin.com
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি